২০২২ সালে আমূল বদলে যেতে পারে রিয়ালের স্কোয়াড | The Daily Star Bangla
০৮:৪৩ অপরাহ্ন, মে ২৮, ২০২০ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৮:৫০ অপরাহ্ন, মে ২৮, ২০২০

২০২২ সালে আমূল বদলে যেতে পারে রিয়ালের স্কোয়াড

স্পোর্টস ডেস্ক

পরিবর্তনের ইঙ্গিতটা অনেক দিন থেকেই দিয়ে যাচ্ছে স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ। ক্লাবকে ফের গ্যালাক্টিকোজ বানানোর পরিকল্পনা ক্লাব সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজের। আর এর জন্য দলের অনেক নিয়মিত খেলোয়াড়দেরই আগামী এক-দুই মৌসুম পর আর নাও দেখা যেতে পারে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে। কারণ ২০২২ সাল নাগাদ ক্লাবের এক ঝাঁক তারকা খেলোয়াড়ের চুক্তির মেয়াদ শেষ হতে যাচ্ছে। এখনও নতুন কোনো চুক্তির ইঙ্গিত মিলেনি।

অধিনায়ক সের্জিও রামোস, লুকাস ভাজকেজ, হামেস রদ্রিগেজ, ও লুকা মদ্রিচের চুক্তির মেয়াদ ফুঁড়বে ২০২১ সালে। আর দানি কার্বাহাল, রাফায়েল ভারানে, নাচো ফার্নান্দেজ, ইস্কো, গ্যারেথ বেল, মার্সেলো ও করিম বেনজেমার মেয়াদ ২০২২ সাল পর্যন্ত। রামোস ছাড়া অন্য কোনো খেলোয়াড়ের চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর বিষয় নিয়ে এখন পর্যন্ত কোনো সংবাদ মিলেনি। একত্রে হয়তো এতো খেলোয়াড় হয়তো ক্লাবটি ছেড়ে দিবে না তারা, কিন্তু এটাও পরিষ্কার বেশ বড়সড় পরিবর্তনের কথাই ভাবছে লস ব্লাঙ্কোসরা। এমন সংবাদই প্রকাশ করেছে স্প্যানিশ গণমাধ্যম এএস।

অনেক দিন থেকে বার্নাব্যুতে পিএসজির ফরাসি তারকা কিলিয়ান এমবাপেকে আনতে চাইছেন রিয়াল সভাপতি পেরেজ। কোচ জিনেদিন জিদানেরও পছন্দ। বেশ কিছু লোভনীয় প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু পিএসজি তাকে ছাড়তে রাজি নয়। মূলত ফরাসি লিগ ওয়ানে খেলোয়াড়দের নির্দিষ্ট রিলিজ ক্লজ না থাকায় ইচ্ছেমতো দাম হাঁকিয়ে তাকে আটকে রেখেছে পিএসজি। তবে সে ক্লাবের হয়ে নতুন কোনো চুক্তি এখনও করেননি এমবাপে। হয়তো মেয়াদ শেষেই রিয়ালে যোগ দেওয়ার ইচ্ছা তার।

বর্তমান সময়ের বিস্ময় বালক এরলিং হালান্ডকে দলে ভেড়াতে চাইছে রিয়াল। রেডবুল সালজবুর্গের হয়ে অবিশ্বাস্য এক মৌসুম কাটানো এ খেলোয়াড় জার্মান ক্লাব বরুসিয়া ডর্টমুন্ডেও সমানভাবে সফল। বেশ কিছু আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের সংবাদ, হালান্ডের রিলিজ ক্লজ ৭৫ মিলিয়ন ইউরো প্রদান করে আগামী গ্রীষ্মেই ১৯ বছর বয়সী এ তরুণকে দলে ভেড়াবে রিয়াল। আর এমনটা যে হতে পারে তার ইঙ্গিত এজেন্ট মিনো রাইওলাও দিয়েছেন।

এর আগে ২০১৮ সালের গ্রীষ্মে হুট করেই ইতালিতে চলে রিয়ালের সবচেয়ে সফল ফুটবলার ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। আলোচনাটা তখন থেকেই। পিএসজি থেকে নেইমারকে আনার গুঞ্জন চড়া ছিল তখন। তবে এ ব্রাজিলিয়ান বার্সেলোনায় ফিরতে মরিয়া। পরে চেলসি থেকে এডেন হ্যাজার্ডকে ১০০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করে কিনে আনে তারা। এমবাপে, হ্যাজার্ড ও হালান্ডকে নিয়ে স্বপ্নময় ত্রয়ী গড়তে চায় ক্লাবটি। তার মানে বেল ও বেনজেমাকে ২০২২ এর পর আর দেখা যাচ্ছে না। যদিও এখনই বেলকে বিক্রির জন্য উঠেপড়ে লেগেছে তারা।

এছাড়া ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ফরাসি মিডফিল্ডার পল পগবার প্রতিও আগ্রহী তারা। পগবাও রিয়ালে আসতে মুখিয়ে আছেন। সম্প্রতি তাকে পেতে ক্লাবের চার খেলোয়াড় -মার্তিন ওদেগার্দ, লুকাস ভাজকেজ, হামেস রদ্রিগেজ ও ব্রাহিম দিয়েজকে দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে লস ব্লাঙ্কোসরা। তবে মদ্রিচের বিকল্প হিসেবে এর মধ্যেই ফেড ভালভার্দে নিজেকে প্রমাণ করেছেন। কামানিঙ্গা ও ফ্যাবিয়ান রুইজরাও হতে পারেন ভালো বিকল্প। আর মার্কো আসেনসিওতো দলের অন্যতম ভরসার নাম। তাই মদ্রিচের চুক্তি নবায়ন হচ্ছে না তা এক প্রকার নিশ্চিতই।

মূল আলোচনাটা রক্ষণভাগে। সেখানেও অনেক তরুণ পুরনোদের জায়গা নিতে মুখিয়ে। ক্লাবে এর মধ্যেই মার্সেলোর জায়গা অনেকটা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। তার জায়গায় প্রায়ই খেলছেন মেন্দি। কার্বাহাল ২০২২ সালে ৩০ এ পড়বেন। তার জায়গা নিতে ধারে ডর্টমুন্ডে খেলতে থাকা আশরাফ হাকিমি ফিরছেন বলে গুঞ্জন চড়া ফুটবল পাড়ায়। ২০২২ সালে ভারানে ও নাচোর বয়স হবে যথাক্রমে ২৯ ও ৩২। তবে ২০ বছর বয়সী এদের মিলিতাও রয়েছেন বিকল্প হিসেবে। তবে অধিনায়ক রামোসের সঙ্গে হয়তো খুব শিগগিরই চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে পারে বলে গুঞ্জন রয়েছে।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top